Saturday, May 18, 2024
No menu items!
HomeEducationImportant: "Easy" ৬টি শীতের সকাল অনুচ্ছেদ সকল শ্রণির জন্য

Important: “Easy” ৬টি শীতের সকাল অনুচ্ছেদ সকল শ্রণির জন্য [২০২৩ আপডেট]

শীতের সকাল অনুচ্ছেদ – সকল শ্রণির জন্য – বাংলা ২য় পত্র

শীতের সকাল অনুচ্ছেদ

বাংলাদেশে ছয়টি ঋতু রয়েছে। তার মধ্যে শীত অন্যতম। শীতের সকালকে বলা হয় শীতের সকাল। একটি শীতের সকাল খুব কুয়াশাচ্ছন্ন এবং ঠান্ডা। শীতকালে ঘাস ও গাছে রাতে শিশির বিন্দু। ঘন কুয়াশায় ঢেকে গেছে সবকিছু। কখনও কখনও কুয়াশা এত ঘন হয় যে সূর্যের রশ্মি তা দিয়ে যেতে পারে না। একটু দূর থেকে মনে হচ্ছে সবকিছুই ঝাপসা। পাখির কিচিরমিচির শোনা যায় না। গরুসহ অন্যান্য প্রাণী বের হতে পারে না। শীতকালে রাত দীর্ঘ এবং দিন ছোট হয়। মানুষ দেরি করে বিছানা থেকে উঠছে।

তারপর তারা নানাভাবে শীতের সকাল উপভোগ করে। তারা গরম কাপড় পরে, খড় বা পাতা সংগ্রহ করে এবং নিজেদের গরম করার জন্য আগুন তৈরি করে। শিশু ও বৃদ্ধরা রোদে সেঁধছে। এছাড়া বিভিন্ন রকমের সুস্বাদু পিঠা, খেজুরের রস, পায়েস, রুটিসহ নানা পদ খেয়ে শীতের সকালকে উপভোগ করেন মানুষ। উল্লেখ্য যে, দরিদ্ররা শীতে অনেক কষ্ট পায় এবং ধনীরা শীতকে অনেক আনন্দের সাথে উপভোগ করে। সূক্ষ্মভাবে, শীতকালে কিছু ত্রুটি থাকা সত্ত্বেও বেশিরভাগ মানুষের কাছে এটি একটি মনোরম সকাল।

শীতের সকাল অনুচ্ছেদ লিখন ৬ ৭ ৮ ৯ ১০ শ্রেণি

একটি শীতের সকাল হল শীতের ঋতুতে একটি ঠান্ডা এবং কুয়াশাচ্ছন্ন সকাল বিভিন্ন দেশে বরফের সকালও বলা বটে। শীতের সকাল সাধারণত খুব ঠান্ডা হয়। শীতের সকালে গ্রামের জীবন সত্যিই আকর্ষণীয়। এই ঋতুতে সারা রাত ও সকালে শিশির ফোঁটা পড়ে। কখনও কখনও, আপনি দীর্ঘ সময়ের জন্য সূর্য দেখতে সক্ষম হবে না। কৃষকরা ভোরবেলা তাদের লাঙ্গল ও গরু নিয়ে মাঠে যেতেন। 

যাদের কাজ করতে হয় তাদের জন্য শীতের সকাল সত্যিই কঠিন। বয়স্ক মানুষ এবং শিশুরা খড় সংগ্রহ করে এবং নিজেদের গরম করার জন্য আগুন তৈরি করে। গরম করার আরেকটি উপায় হল রোদে শুয়ে থাকা। এই সময়ে খাবারটি দুর্দান্ত। প্রতিটি বাড়িতে তারা বিভিন্ন ধরনের পিঠা, মুড়ি, খই, চিড়া তৈরি করে। শীতের সকালে খেজুরের রস পান করা ভালো। এই ঋতুতে খেজুরের রস সত্যিই একটি আকর্ষণীয় পানীয়। ধনী লোকেরা তাদের সকাল ভাল খাবার এবং ভাল পোশাক দিয়ে উপভোগ করে। কিন্তু দরিদ্র মানুষ এবং বিশেষ করে গৃহহীন মানুষ সে সময় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

শীতের সকাল অনুচ্ছেদ লিখন এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য

শীতকাল আমার প্রিয় ঋতু। আমি সকালে ঋতু পছন্দ. আমি দেরী করে ঘুম থেকে উঠতে পছন্দ করি। শীতকালে সূর্য দেরিতে ওঠে। শিশির বিন্দুতে সূর্যের রশ্মি পড়লে এক মনোমুগ্ধকর দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। শীতে অলস হয়ে যাই। কুয়াশা মনে হয় প্রকৃতি। সর্বত্র শীতল বাতাস। গাছ এবং ঘাস শীতকালে তাজা এবং নতুন দেখায়। জীবন সব জায়গায় শ্লথ বলে মনে হচ্ছে। অনেক সময় আকাশে সূর্য দেখা যায় না। শীতকালে মানুষ দেরিতে ঘুম থেকে ওঠে।

সকালটা খুব ঠান্ডা কিন্তু উপভোগ্য। সকালে অতিরিক্ত ঠান্ডায় ঘর থেকে বের হচ্ছে না মানুষ। তবে শীতের সকালে আমার হাটতে বের হতে অনেক ভাল লাগে। শীতকালে গাছ আরও সবুজ হয়। নগরবাসী তাদের অফিসে দেরি করছে। তারা স্বস্তি বোধ করে। মানুষ কম্বলের নিচে নিজেদের বাঁচায়। গ্রামে মানুষ মিষ্টি পিঠা বানায়। ঐতিহ্যবাহী কেক খুব সুস্বাদু। মানুষ আগুনের পাশে বসতে ভালোবাসে।

তারা একসাথে বসে উষ্ণতা অনুভব করে। তারা গরম অনুভব করতে ভালোবাসে। শীতের মৌসুমে মানুষ আরও কিছু খাবার তৈরি করে। শীতের সকালে মানুষ নানা উপাদেয় খাবার খেয়ে থাকে। শীতকালে খেজুরের রস একটি বিশেষ খাবার। গ্রামে মানুষ খড় জ্বালিয়ে আগুন দেয়। লোকেরা তাদের আত্মীয়দের বাড়িতে কেক সহ ঐতিহ্যবাহী মিষ্টি বিশেষত খেজুরের রস নিয়ে যায়। সকাল আমাদের আনন্দ নিয়ে আসে। একটি শীতের সকাল সত্যি আরামদায়ক এবং লোকেরা এটি অনেক উপভোগ করে। শীতের সকাল সবার জন্য উপভোগ্য। আমি শীতের সকাল পছন্দ করি।

A Historical Place I have Visited Paragraph for All Classes

শীতের সকাল অনুচ্ছেদ ক্লাস ২য়-৫ম

ঋতু বৈচিত্র্যের দেশ বাংলাদেশের ছয়টি ঋতুর মধ্যে শীতকাল ৫ম । ঝরে পড়া পাতার কোলাহলে তার আগমন আর বসন্তের নতুন পাতার জাগরণে তার প্রস্থান। তারপর শীতের সকাল প্রকৃতির সম্পূর্ণ ভিন্ন রূপ ধারণ করে, এক গৌরবময় মহিমায়। কুয়াশা আর কাদায় ঢাকা ধুলোমুক্ত পরিবেশে শীতের সকাল হয়ে ওঠে মনোরম। কুয়াশার এই স্তরের মধ্য দিয়ে যখন রূপালী আলো জ্বলে, তখন ঘরবাড়ি, গাছ, মাঠ এবং প্রান্তর ঝকঝকে হয়ে ওঠে।

শীতের সকালে অন্যান্য ঋতুর মোহনীয়তা নেই। তবে শীতের সকালে নানা ধরনের পিঠা খাওয়ার ধুম পড়ে যায়। যদিও এই আনন্দ চারপাশে উৎসবমুখর পরিবেশ তৈরি করে, তবুও মানুষ শীতের সকালকে আড়ালে কাটাতে ভালোবাসে। যদিও শীতের সকালগুলি অলসতা এবং উত্সবের মেজাজে উপভোগ্য, তবে তারা দরিদ্রদের জন্য কঠিন। সূর্যের রশ্মির তীব্রতা বাড়লে শীতের সকালের মেজাজ দূর হয়। তবুও শীতের সকাল প্রকৃতিকে এক পবিত্র সৌন্দর্যে আচ্ছন্ন করে যা সারাদিন পরিব্যাপ্ত হয়।

Winter Morning Paragraph For All Classes

Winter is the 5th among the six seasons of Bangladesh, a land of seasonal diversity. His arrival in the rustle of falling leaves and his departure in the awakening of new leaves of spring. Then the winter morning takes on a completely different form of nature, in glorious majesty.

A winter morning becomes pleasant in a dust-free environment covered with fog and mud. When the silvery light shines through this layer of moisture, the houses, trees, fields and wilderness sparkle.

Winter mornings lack the charm of other seasons. However, in the morning of winter, the smoke of eating various types of pita falls. Although this joy creates a festive atmosphere, people still love to spend winter mornings undercover. Although winter mornings are enjoyable in a mood of idleness and festivity, they are hard on the poor. As the intensity of the sun’s rays increases, the mood of the winter morning is removed. Yet the winter morning imbues nature with a sacred beauty that permeates the day.

Download PDF

শীতের সকাল অনুচ্ছেদ ৭ম শ্রেণি

শীতের সকাল মানেই কুয়াশাচ্ছন্ন প্রকৃতি। সুন্দর এই প্রকৃতি দেখা যায় সকালেই । অনেকক্ষণ ধরে আমার একটা অদম্য ইচ্ছা বুকের মধ্যে মরে যাচ্ছিল। অবশেষে গত ডিসেম্বরে তা সত্যি হলো যখন আমি আমার মামার বাড়িতে গেলাম। এখানে সূর্য ওঠে এবং অস্ত যায়। মামার খেজুরের বাগান আছে। আগের রাতে মামা আমাকে তাড়াতাড়ি উঠতে বললেন। ভোর সাড়ে ৫টায় আমাকে ফোন করেন।
কৌতূহল বাড়তে থাকায় ঠান্ডা কোনো বাধা ছিল না। কুয়াশার পথ ধরে এগোচ্ছে। কখনও কখনও পাখিদের ঘুম থেকে ওঠার অনেক আগেই ঠান্ডা বাতাস বয়ে যায়। পাতা উঠতে শুরু করেছে। সূর্যের ক্ষীণ আলো কুয়াশার শরীরে মিশে যাচ্ছে। একটু একটু করে খেজুর বাগানে এলাম। কি মজা! কি মজা! খেজুরের রস আগুনে জ্বাল দেওয়া হয়। এর সুগন্ধে চারিদিকে গুনগুন করছে।
দেখলাম কিভাবে নলেন গুড় তৈরি হয়, কাকা এক গ্লাসে খেজুরের রস নিয়ে এলেন। বরফের জলের মত ঠান্ডা আমার শরীর কেঁপে উঠল যতই আমি খেয়েছি কিন্তু মনে হল আমি যেন অমৃত পান করেছি, সূর্যের শক্তি একটু বেড়েছে, দূরের সবকিছু পরিষ্কার হয়ে গেছে, সকালের নরম সূর্য সরিষার উপর পড়েছে, মনে হচ্ছে কেউ সোনা ছড়িয়ে দিয়েছে। শীতের সকালের ছবি এঁকেছি ধূলিময় মনের চোখে।

বাংলা ২য় পত্রের সারাংশ এবং সারমর্ম :

শীতের সকাল অনুচ্ছেদ ৮ম শ্রেণি

 
বাংলাদেশে শীতকাল সৌন্দর্য ও অনন্যতার একটি মুহূর্ত। শীতের এই সকালগুলো হয় মিষ্টি ও মনোরম। শীতকাল খুব জনপ্রিয়। কিন্তু সময়ের বিবর্তনে বা আমাদের দেশে জলবায়ুর এই পরিবর্তনের কারণে শীতের সকাল খুব কমই দেখা যায়, বিশেষ করে শহরাঞ্চলে। শীত প্রকৃতির বাতাসের সাথে শূন্যতা নিয়ে আসে। ঘন পর্ণমোচী গাছ এবং অনুর্বর মাঠের চিরহরিৎ রঙ যেন হারিয়ে গেছে। শীতের সকালে পরিবেশ বিষণ্ণ হয়, যখন কুয়াশার চাদর থাকে। সমগ্র দিগন্ত শুধু অন্ধকারে প্রসারিত।
যারা কাজ করেন তারা প্রায়ই অলস এবং তাদের ব্যস্ত সময়সূচী সত্ত্বেও বিছানায় খুব বেশি সময় কাটান। স্বাভাবিক তাপমাত্রা পুনরুদ্ধারের জন্য, আগুন জ্বালিয়ে তাপ গ্রহন করা হয় । শীতের সকাল শহর এবং গ্রামাঞ্চলের মধ্যে খুব আলাদা হতে পারে। শীতকালে গ্রামের মানুষ লাঠি দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে রাত উপভোগ করে। গ্রামবাংলার মানুষ এখনো শীতকালে খেজুর গুড় খাওয়ার ঐতিহ্যকে ভালোবাসে।
পৌষ ও মাঘের শীতের সকালগুলো খুবই উপভোগ্য। শীতের সকাল বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না। সূর্য এক পর্যায়ে উদিত হয় এবং ধীরে ধীরে তাপ বিকিরণ করে। শীতের প্রভাব কাটিয়ে মানুষ পায়ে হেঁটে বের হতে পারে। শুরু হয় ব্যস্ত জীবন।
RELATED ARTICLES

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Trending Post